bengali

প্রকাশিত হল উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল, জয়জয়কার ছাত্রীদেরই

Webdesk | Friday, June 8, 2018 11:43 AM IST

 প্রকাশিত হল উচ্চমাধ্যমিকের ফলাফল, জয়জয়কার ছাত্রীদেরই

সকাল দশটা নাগাদ সাংবাদিক বৈঠক করে ফল প্রকাশ করলেন উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। সকাল সাড়ে দশটা থেকে ওয়েবসাইটে ফল জানতে পারবেন ছাত্র-ছাত্রীরা। করেন উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারপার্সন মহুয়া দাস। জানান, এবছর উচ্চ মাধ্যমিকে পাশের হার ৮৩.৭৫ শতাংশ। পাশ করেছেন ৬,৬৩ হাজারের কিছু বেশি পরীক্ষার্থী। পূর্ব মেদিনীপুর ও কালিম্পং জেলায় পাশের হার ৫০ শতাংশের বেশি। ১৮টি জেলায় ছাত্রীদের পাশের হার ছাত্রদের থেকে বেশি। 

এবছর উচ্চ মাধ্যমিকে প্রথম হয়েছেন জলপাইগুড়ি জেলা স্কুলের গ্রন্থন সেনগুপ্ত। তাঁর প্রাপ্ত নম্বর ৪৯৬। শতাংশের নিরিখে ৯৯.২ শতাংশ। স্মরণাতীত কালে এই প্রথম কলা বিভাগ থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে প্রথম হলেন কোনও পরীক্ষার্থী। এই বছর পরীক্ষা দিয়েছেন ৮ লাখেরও বেশি ছাত্রছাত্রী। এই বছর ছাত্রের সংখ্যা প্রায় ৪,২০,০০০। ছাত্রী প্রায় ৩,৮০,০০০।

ফলাফল জানার জন্য ওয়েবসাইটগুলি হল :http:// wbresults.nic.in, www.exametc.com, www.indiaresults.com, www.schools9.com, www.results.shiksha, www.westbengal.shiksha, www.westbengalonline.in, www.knowyourresult.com, www.school.gradeup.co, www.abbse.org সাইটগুলির নির্দিষ্টস্থানে গিয়ে রোল নম্বর দিলেই পরীক্ষার্থী কিংবা পরিবারের সদস্যরা রেজাল্ট সম্পর্কে তথ্য পাবেন। ওয়েবসাইট ছাড়াও এসএমএস-এও ফলাফল জানা যাবে। এসএমএস-এ ফল জানতে টাইপ করতে হবে, SMS WB 12 স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে পাঠিয়ে দিতে হবে 5676750 এবং 58888 নম্বরে। তারপরই পাল্টা এসএমএসে ফল জানতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা। www.exametc.com সাইটে আগে থেকে রোল ও মোবাইল নম্বর রেজিস্টার করা থাকলে এসএমএস-এ ফল জানানো হবে।

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কালিম্পং৷  বিজ্ঞান বিভাগ থেকে দ্বিতীয় হয়েছে তমলুকের ছাত্র  ঋত্বিক কুমার সাহু ৷ তৃতীয় হয়েছে দু’জন ৷  তিমিরবরণ দাস ও শ্বাশত রায় ৷ চতুর্থ স্থানে রয়েছে ৬ পড়ুয়া ৷ অর্কদীপ্তা ঘোষ মেয়েদের মধ্যে প্রথম হয়েছে ৷ তার প্রাপ্ত নম্বর ৪৮৬ ৷ অর্কদীপ্তা পঞ্চম হয়েছে ৷দশমস্থানে রয়েছেন ১৬ জন, প্রাপ্ত নম্বর ৪৮১, তীর্থ শংকর (নবনালন্দা), জয়েশ সাউ (নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশন), সায়নী দত্ত, অর্ণব কুমার মল্লিক , নবম স্থানে ১৫ জন, প্রত্যুষা সাহা (ললিত ভবন, দক্ষিণ দিনাজপুর), দিপ্তম জানা (ইন্দ্রকৃষ্ণ লাল শিক্ষা নিকেতন) সৌভিক চন্দ্র, সুরজিত ভাতব্যর, আফরোজ়া বানু (সুখানী ভোলাপাড়া হাইস্কুল), সৌমেন মাঝি (পূর্ব মেদিনীপুর), অভিক ঘোষ (বর্ধমান), সারফরাম আলম (কোচবিহার), জাহ্নবী পাল (কোচবিহার), অর্পণ দ্বিবেদী বিশ্বজিৎ দত্ত, বাণিজ্যে প্রথম, সব মিলিয়ে রয়েছে অষ্টমস্থানে অষ্টম স্থানে রয়েছে ১২ জন, ৯৬.৬ শতাংশ, রাজশেখর চট্টোপাধ্যায়, অর্ঘ্য দে, দেবশুভ্র চক্রবর্তী, জিষ্ণু বিশ্বাস, রৌনক পাত্র, বিশ্বজিত দত্ত (কমার্সে প্রথম), সায়ন্তন চক্রবর্তী, অনন্যা ঘোষ ষষ্ঠস্থানে রয়েছেন ১০ জন, প্রাপ্ত নম্বর ৪৮৫, তন্বিষ্ঠা মণ্ডল, নয়নিকা রায়, সাগ্নিক তালুকদার, কিশলয় সরদার, দেবদত্তা পাল, সপ্তর্ষি মণ্ডল,

সংসদের তরফে জানানো হয়েছে, এবার রিভিউর আবেদন জানানো যাবে অনলাইনেই। সেজন্য পয়সাও মেটানো যাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে। ফল প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে সংসদের ওয়েবসাইটে জানানো যাবে রিভিউর আবেদন। রিভিউর ফল জানানো হবে ১ মাসের মধ্যে।